থাইল্যান্ডে ফুলমুন পার্টি উদযাপনের জন্য কিছু পরামর্শ

যখন থাইল্যান্ড যাবেন ভাবছেন তখন একটি জিনিস আপনার কোন ভাবেই মিস করা উচিত হবে না তা হল পূর্ণিমা উদযাপন

থাইল্যান্ডে যত উৎসব হয় তার মধ্যে পূর্ণিমা উদযাপন অন্যতম একটি আকর্ষণ। প্রতি পূর্ণিমায় এখানে প্রায় ৩০,০০০-৪০,০০০ মানুষ ঘুরতে আসে এবং আনন্দ উদযাপন করে।

এখানে অনেক বার থাকার কারনে প্রচুর নাচগান আর মদ্যপান হয়ে থাকে যাদের নিজস্ব সাউন্ড সিস্টেম রয়েছে। আপনি যেখানেই যাবেন সেখানেই গান শুনতে পারবেন।

এখানে রয়েছে ফায়ার ডাঞ্ছার এবং আরো অনেক ধরনের কার্যকলাপ যার মধ্যে রয়েছে মুখ পেইন্টিং।

এখানে প্রচুর মদ্যপান করা মানুষ থাকলেও কোন ঝামেলা হয় না।এখানে যারা আসেন তারা আসলে মজা করতেই আসেন, কোন খারাপ উদ্দেশ্য থাকে না।

পূর্ণিমা উদযাপনের সময় আপনি চাইলে যতক্ষণ খুশি মদ্যপান করতে পারবেন।

কিভাবে যাবেন পূর্ণিমা উদযাপন করতে থাইল্যান্ডে দেখে  নিন।

প্রথম প্রশ্নটি হল, কিভাবে সেখানে যাবেন?

এখানে কোন বিমানবন্দর নেই তাই আপনাকে কোহ সুরাট থানাই বা কোহ ছামুই থেকে ফাঙ্গা পর্যন্ত ফেরীতে করে যেতে হবে।

  • সুরাট থানাই থেকেঃ আপনাকে অবশ্যই একটি ফেরী ধরতে হবে যা আপনাকে থং সালা পর্যন্ত নিয়ে যাবে। তারপর হাড রিং পর্যন্ত ট্যাক্সি করে যেতে হবে। ফেরী ভাড়া ৬০০ থাই বাত এবং ট্যাক্সি ভাড়া ১০০ থাই বাত
  • কোহ সামুইঃ আপনি অন্য একটি ফেরীতে করে মিনাম থেকে থং সালা পর্যন্ত যেতে পারবেন। ভাড়া ২০০ থাই বাত
  • এখানে আপনি বাসের সুবিধাও পাবেন যা আপনাকে রাতারাতি ব্যাংকক থেকে কো ফা গাঙ নিয়ে যাবে মাত্রও ৪৫০-৬০০ থাই বাত এর মধ্যে। এটি বেশ সময় সাপেক্ষ যাত্রা। কিন্তু চিন্তার কিছু নেই, যখন আপনি পার্টিতে চলে যাবেন তখন আর কোন ক্লান্তি থাকবে না।
  • আপনি চাইলে ব্যাংকক থেকে সরাসরি কোহ সামুই বিমানবন্দরে যেতে পারেন। এতে আপনার ৩,০০০-৪,০০০ বাত এর প্রয়োজন হবে। এটি সবচেয়ে কম সময়ে আপনাকে আপনার গন্তব্যে পৌঁছে দিবে।

কোথায় থাকবেন?

এখানে থাকার জন্য প্রচুর হোটেল পাবেন। মাত্র ১০ মিনিটের ব্যবধানে আপনার খরচ ও কিছুটা কমে যাবে।

পূর্ণিমা যত কাছে চলে আসবে সবকিছুর দাম বেড়ে যাবে। পূর্ণিমার দিন কিংবা আগের দিন দাম দুইগুন হয়ে যাবে। এমনকি নতুন বছরের উৎসবে অবকিছুর দাম প্রায় তিনগুন শুধুমাত্র থাকার জায়গা ছাড়াই।

তাই, অনলাইনে বুকিং দেওয়া কি ভালো হবে?

না, মোটেও না। নতুন বছরের শুরুতে থাকার জায়গা অনেক ব্যয়বহুল। এমনকি ১০ দিনের কম আপনার জন্য কেও রুম বুকিং নিবে না। অনলাইনে বুকিং না করে আপনি বরং সেখানে যান, তাতে আপনার অনেক লাভ হবে।

রুম ভাড়া সাধারণত পূর্ণিমার ১ সপ্তাহ আগেই বুকিং শুরু হয়। আপনাকে সারারাত বাইরে কাটাতে হবে যদি পূর্ণিমার সময় আপনি আগে থেকেই রুম বুকিং না করেন।

পূর্ণিমার দিন

পার্টির দিনে দেখতে পারবেন প্রচুর মানুষ আসছে। তারা সাধারণের থেকে অনেক বেশি মদ্যপান করবে এবং আস্তে আস্তে বীচের দিকে যাওয়া শুরু করবে।

ঝামেলা এড়ানোর কৌশল

নেশাজাতীয় দ্রব্যাদি পরিহার করুনঃ এখানে প্রচুর মানুষ নেশাজাতীয় দ্রব্যাদি বিক্রি করবে যা থাইল্যান্ডে অবৈধ। কেও যদি আপনাকে নেশাজাতীয় দ্রব্যাদি বিক্রি করার জন্য অনুরোধ করে তাহলে তা থেকে বিরত থাকুন।

পুরোটা একাশেষ করার কথা মাথায় আনবেন না, এটি অনেকটা দলীয় কাজের মত। খেয়াল রাখবেন পুরোটা মদ শেষ করার জন্য অন্তত ৫ জন মানুষ প্রয়োজন হবে।

প্রচুর পরিমান পানি পান করুন। মদ্য পান করলে আপনার প্রচুর পানি পিপাসা লাগবে এবং তখ নপ্রচুর পানি পান করুন। প্রচুর পানি পান করলে কাল সকালে আপনার খারাপ লাগার পরিমান কমে যেতে থাকবে।

সুমদ্র থেকে দূরে থাকুন কারন এটি বেশ ঝুকিপূর্ণ এবং সাধারন মানুষ এটিকে রাতের বেলা নিজেদের ব্যক্তিগত টয়লেট হিসেবে ব্যবহার করে। আপনি নিশ্চয় চাইবেন না যে আপনি কারো মলমূত্রের মধ্যে শুয়ে থাকেন।

পার্টিতে কি কি আনবে? আপনার যা যা লাগবে শুধু তাই আনুন যেমন টাকা, খাবার, চাবি ইত্যাদি।

পূর্ণিমার পার্টি একটি বড় উৎসব সারা পৃথিবীর মধ্যে। সাড়া পৃথিবীর সকল বয়সী মানুষ এখানে আসে আনন্দ উদযাপন করতে। যদি আপনি ঠিক মত না জানেন তাহলে আপ্নাএ অনেক টাকা খরচ হয়ে যাতে পারে।

চিন্তা করবেন না, আপনি এরই মধ্যে অনেক কিছু জেনে গেছেন। আমি আসা করি আপনার খুব ভালো সময় কাতবে।

মনে রাখবেন, স্ট্রেস ফ্রি পূর্ণিমা উদযাপনের জন্য তাড়াতাড়ি রুম বুকিং করুন এবং শেষ পর্যন্ত আনন্দ করুন।

Sources:

https://www.nomadicmatt.com/travel-blogs/the-ultimate-guide-to-the-full-moon-party/

https://theblondeabroad.com/2011/08/14/party-paradise-under-the-full-moon-in-thailand/

 

এখনও কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।